মেনু নির্বাচন করুন
পাতা

বিশেষ অর্জন

উদ্ভাবনী প্রকল্পের নামঃ

“স্বয়ংক্রিয় voice call এর মাধ্যমে গর্ভবতী মায়ের গর্ভকালীন ও প্রসব পরবর্তী কমপক্ষে ৪ টি চেকআপ সেবা নিশ্চিতকরন”।

 

প্রেক্ষাপটঃ

বাংলাদেশের অধিকাংশ গর্ভবতী মা অজ্ঞতা বা তথ্য না জানার কারনে WHO এর মানদন্ড  অনুযায়ী নিদিষ্ট সময় পর পর গর্ভকালীন ও প্রসব পরবর্তী কমপক্ষে ৪ টি চেকআপ সেবা গ্রহণ করেন না। ফলে তাঁরা গর্ভকালীন ও প্রসব পরবর্তী নানা ধরনের জটিলতায় ভোগেন। এবং এ সকল জটিলতার কারনে অনেকের মৃত সন্তান প্রসব,অতিরিক্ত রক্তক্ষরনে গর্ভবতী মায়ের মৃত্যু এবং শিশু মৃত্যুর ঘটনা ঘটে থাকে। কিন্তু বাংলাদেশের গ্রাম ও শহরে অধিকাংশ মানুষ বর্তমানে মোবাইল ফোন ব্যাবহার করে সেহেতু ডিজিটাল বাংলাদেশ বিনির্মানে মোবাইল এর মাধ্যমে সেবা গ্রহণ নিশ্চিতকরণ সহজতর হবে। মা ও শিশুর এ অনাকাংখিত মৃত্যু হ্রাসের এর লক্ষ্যে আমার এই উদ্ভাবনী প্রকল্প গ্রহণ।

 

অগ্রাধিকার ও উদ্দেশ্যসমূহঃ

. গর্ভবতী মা এবং শিশুর অনাকাংখিত মৃত্যু হ্রাসে অগ্রণী ভূমিকা পালন।

২. ডিজিটাল প্রযুক্তি ব্যবহারের মাধ্যমে নাগরিকের উন্নততর সেবা নিশ্চিতকরণ।

৩.গর্ভবতী মা, তাঁর শিশু সন্তান ও পরিবার এর সুরক্ষা নিশ্চিত করা।

৪. সর্বপরি নারীর উন্নয়ন নিশ্চিত করা।

 

ব্যবহৃত সৃজনশীল পদ্ধতি সমূহঃ

উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তার কার্যালয়,শার্শা, যশোর এ অত্র উপজেলার সকল গর্ভবতী মায়ের মোবাইল নং সহ সকল তথ্য সংরক্ষিত থাকে। এবং প্রতি ২ মাস পর পর তথ্য হালনাগাদ করা হয়। ০১টি web based customized software এর মাধ্যমে ঐ সকল গর্ভবতী মায়ের মোবাইল নং এ নিদিষ্ট তারিখের পূর্বে রেকর্ডকৃত স্বয়ংক্রিয়  voice call দিয়ে তার নিকটস্থ সেবা কেন্দ্রে গর্ভত্তোর ও প্রসব পরবর্তী কমপক্ষে ৪ টি চেকআপ সেবা নিশ্চিতকরন প্রকল্প সাফল্যের সাথে চালু আছে।

 

বাস্তবায়নের সময়কালঃ ২০১৬ -২০১৭ অর্থ বছর।

 

উদ্যেগের ফলে সৃষ্ট প্রভাবঃ

১.উপজেলার অধিকাংশ গর্ভবতী মা স্বয়ংক্রিয় voice call পেয়ে নিদিষ্ট দিনে গর্ভকালীন ও প্রসব পরবর্তী কমপক্ষে ৪ টি চেকআপ সেবা গ্রহণ করছেন।

২. মানুষ সেবা কেন্দ্রমুখী হচ্ছে।

৩.অত্র উপজেলায় অনাকাংখিত মৃত্যু হ্রাস পেতে শুরু করেছে।

৪. মোবাইল ফোনের মাধ্যমে উন্নততর সেবা গ্রহণ নিশ্চিত হচ্ছে।

 

অসাধারণ অর্জনঃ

আমার জানা মতে web based customized software এর মাধ্যমে গর্ভবতী মায়ের মোবাইল নং এ নিদিষ্ট তারিখের পূর্বে রেকর্ডকৃত স্বয়ংক্রিয় voice call দিয়ে তার নিকটস্থ সেবা কেন্দ্রে গর্ভত্তোর ও প্রসব পরবর্তী কমপক্ষে ৪ টি চেকআপ সেবা গ্রহণ নিশ্চিতকরন প্রকল্প বাংলাদেশে এই প্রথম। যা ২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে উপজেলা পরিষদ,শার্শা,যশোর এর বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীর অর্থায়নে

 

উদ্যেগ মনোনীতর সম্পৃক্ততার ধরণঃ

জনাব পুলক কুমার মণ্ডল, উপজেলা নির্বাহী অফিসার, শার্শা, যশোর, জনাব মোঃ সাইদুর রহমান, উপজেলা পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা, শার্শা, যশোর এবং জনাব আহসান কবির, সহকারী প্রোগ্রামার, শার্শা, যশোর এই তিন জনের সমন্বয়ে গঠিত দল তাঁদের সম্পূর্ণ নিজের উদ্ভাবনী ধারণা কাজে লাগিয়ে সরাসরি সম্পৃক্ত থেকে সাফল্যের সহিত এই প্রকল্প চালু করেছেন। এবং software এর আপগ্রেডের মাধ্যমে আরও কি সেবা নিশ্চিত করা যায় তার নিরন্তর চেষ্টা করছেন।

 

টেকসই অবস্থাঃ

২০১৬-২০১৭ অর্থ বছরে উপজেলা পরিষদ,শার্শা,যশোর এর বার্ষিক উন্নয়ন কর্মসূচীর অর্থায়নে স্থায়ী বাবে web based customized software ক্রয় করা হয়েছে এবং প্রাথমিক ভাবে ০১ বছরের জন্য voice call(যে কোন অপারেটরে ব্যবহার যোগ্য) ক্রয় করা  হয়েছে যা পরবর্তী নবায়নযোগ্য। সবচেয়ে বড় বিষয় হলো এই সেবা গ্রহণে গ্রহীতার কোন খরচ নাই,সেহেতু এটি একটি টেকসই উদ্ভাবনী ব্যবস্থা

ছবি


সংযুক্তি


সংযুক্তি (একাধিক)



Share with :

Facebook Twitter